1. bangladeshkhobor24bk@gmail.com : bangladesh khobor : বাংলাদেশ খবর
October 1, 2022, 9:21 pm
ব্রেকিং নিউজ
নোয়াখালীতে ঝড়ে লণ্ডভণ্ড দুর্গাপূজার মণ্ডপ কাজের অর্ডার না থাকায় সাভার ও আশুলিয়ায় ৩ পোশাক কারখানা বন্ধ গোমস্তাপুরে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালিত পৌরসভার পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আককাস আলী সাভারে পঞ্চাশ বছর বয়সী এক নারী গণধর্ষণের শিকার বিরামপুরে “দৈনিক ডেল্টা টাইমস” পত্রিকার ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন একতার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা র‌্যাব মহাপরিচালকের দায়িত্ব গ্রহণ করলেন খুরশীদ হোসেন সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রেখে স্বপ্নের দেশ গড়ে তুলতে হবে : প্রধানমন্ত্রী রংপুরে জিনের সরদার গ্রেফতার রহনপুর রেলওয়ে বন্দর পরিদর্শনে করলেন রেলমন্ত্রণালয়ের সচিব হুমায়ুন কবির শেহজাদ খান আমার এবং শাকিব খানের সন্তান: বুবলী ইডেনে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টা মামলা কেন ভাত খাওয়ার পর ঘুম পায়? চোখ ওঠার সমস্যায় কখন যাবেন ডাক্তারের কাছে? তদন্তে গাফিলতি: এসআই বিভাসের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থার নির্দেশ বিদায়ী আইজিপি ড. বেনজীরের নিরাপত্তায় দেহরক্ষী দেওয়ার নির্দেশ যানজট এড়াতে বেঙ্গালুরুতে চালু হচ্ছে হেলিকপ্টার মালদ্বীপে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন ঢাবিতে হামলার প্রতিবাদে ছাত্রদলের সমাবেশ, বন্ধ যান চলাচল

বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে উজ্জ্বল হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ খবর ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : Wednesday, January 19, 2022,
  • 3 বার পড়েছেন
প্রধানমন্ত্রী
Bk

বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে উজ্জ্বল হয়েছে: প্রধানমন্ত্রীবাংলাদেশের অগ্রযাত্রা যারা মেনে নিতে পারছে না, তাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, একটা সময় বাংলাদেশ সম্পর্কে বিদেশে অনেক নেতিবাচক কথা ছিল। তবে এখনও কিছু কিছু লোক আছে, বাংলাদেশ সম্পর্কে বদনাম করতেই বেশি পছন্দ করে। বুধবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সামরিক বাহিনীর কমান্ড ও স্টাফ কলেজ (ডিএসসিএসসি) কোর্সের ২০২১-২০২২ গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে বক্তৃতাকালে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ উন্নয়নের ‘রোল মডেল হিসেবে’ বিশ্বে যে মর্যাদা পেয়েছে, তা ধরে রাখার তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আর্থসামাজিক উন্নয়নের ফলে এবং আন্তর্জাতিক শান্তি রক্ষা ও দেশের অভ্যন্তরে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ দমনে আমরা যে দক্ষতা দেখিয়েছি, তার ফলে আজকে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্বে উজ্জ্বল হয়েছে। “ঠিক ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে জয়লাভ করার পর যে সম্মান আমরা আন্তর্জাতিকভাবে পেয়েছিলাম, ১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্টের পর যে সম্মান আমরা হারিয়েছিলাম, আজকে আবার সেই সম্মান আমরা পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি। এখন আর বাংলাদেশকে কেউ অবহেলা করতে পারে না। বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্ব দরবারে মর্যাদা পেয়েছে। এই মর্যাদা ধরে রাখতে হবে।”

২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছে ২০৭১ সালে স্বাধীনতার শতবর্ষ উদযাপনের স্বপ্নের কথা জানিয়ে নবীন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা বলেন, “উন্নত বাংলাদেশ গড়ে তোলার সৈনিক হিসেবে কাজ করতে হবে। সব সময় মাথা উঁচু করে চলতে হবে এবং দেশকে ভালোবাসতে হবে, দেশের মানুষকে ভালোবাসতে হবে।

দেশের জন্য নিবেদিতপ্রাণ হতে হবে। “বাংলাদেশ আজকে স্বাধীন দেশ। বাংলাদেশের এই অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা আর কখনো কেউ থামিয়ে দিতে পারবে না, সেই ভাবেই বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে সামনের দিকে।” নিজেকে সেনা পরিবারের একজন সদস্য বলেই মনে করেন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে বলেন, “আমার দুই ভাই সেনাবাহিনীর সদস্য ছিল। ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এবং লেফটেন্যান্ট শেখ জামাল। কামাল মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ প্রথম যুদ্ধ প্রশিক্ষণ কোর্স শেষ করে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে।

পরে তাকে মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রধান সেনাপতির এডিসি হিসেবে আমাদের সরকার দায়িত্ব দেয় এবং সেই দায়িত্ব সে পালন করে। আর জামাল সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। আমার চাচা শেখ আবু নাসেরের সাথে ৯ নম্বর সেক্টরে যুদ্ধ করেছিল।”

মুক্তিযুদ্ধের দিনগুলোর কথা স্মরণ করে বঙ্গবন্ধুর মেয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “১৯৭১ সালে আমার মা, জামাল, রেহানা, রাসেল এবং আমি; আমরা গ্রেপ্তার হয়েছিলাম। জামাল গেরিলা কায়দায় সেখান থেকে পালিয়ে যায় এবং পালিয়ে গিয়ে সে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। তার ওই বন্দিখানা থেকে বের হয়ে যাওয়াটা মুক্তিযুদ্ধে যখন ট্রেনিং দেওয়া হয়, তখন সেটা খুব ভালোভাবে প্রচার করা হত এবং প্রশিক্ষণের একটা অংশ হিসেবে ব্যবহার করা হত। পরে ব্রিটিশ রয়্যাল মিলিটারি অ্যাকাডেমি, স্যান্ডহার্স্ট থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে স্বাধীনতার পর সে সরাসরি আমাদের সেনাবাহিনীতে কমিশন লাভ করেছিল।”

ছোট ভাই রাসেলের ইচ্ছার কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, “তার একটা আকাঙ্ক্ষাই ছিল ছোটবেলা থেকে, যে সে বড় হলে সামরিক বাহিনীর অফিসার হবে। কিন্তু সেই আকাঙ্ক্ষা তার আর পূরণ হয়নি।” ১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট বঙ্গবন্ধু পরিবারের প্রায় সবাইকে হত্যা করে একদল সেনা সদস্য। দেশের বাইরে থাকায় বেঁচে যান কেবল শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। সশস্ত্র বাহিনীর উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে আওয়ামী লীগ সরকারের নেওয়া নানা পদক্ষেপের কথাও অনুষ্ঠানে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।  

তিনি বলেন, ডিএসসিএসসি এ পর্যন্ত সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনীর মোট ১২৮টি কোর্স পরিচালনা করেছে এবং ৫ হাজার ৬৮৬ জনকে ডিগ্রি দিয়েছে। ৪৩টি দেশের ১ হাজার ২৫৫ জন অফিসার সেখান থেকে ডিগ্রি নিয়ে নিজ দেশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। “আমি আনন্দিত, এবারও ১৮টি দেশের ৪৭ জন বিদেশি কর্মকর্তা এবং বাংলাদেশ পুলিশের তিনজন কর্মকর্তাসহ মোট ২৫১ জন পিএসসি ডিগ্রি লাভ করলেন।” প্রধানমন্ত্রী বলেন, চলতি ডিএসসিএসসি কোর্সে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী থেকে নারীদের জন্য পাঁচটি আসন সংরক্ষণের নির্দেশ তিনি দিয়েছিলেন।

“প্রকৃতপক্ষে আমরা ১০টি আসন সংরক্ষণ করি পরে। আমাদের সশস্ত্র বাহিনীতে নারীর ক্ষমতায়ন ত্বরান্বিত হয়েছে। অংশগ্রহণকারী অফিসারদের স্পাউসরাও প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে বিভিন্ন গঠনমূলক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিচ্ছেন, আমি মনে করি প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে তারাও অবদান রাখতে পারছেন।

আমাদের ওয়েবসাইট >বাংলাদেশ খবর
আমাদের ইউটিউব > 24News tv
আমাদের ফেসবুক পেজ > বাংলাদেশ খবর
আমাদের টুইটার > @b_khobor

Google Ads

এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো খবর

ক্যালেন্ডার

October 2022
S M T W T F S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  
শ্যামপুর-মডেল-টাউন।
https://www.facebook.com/bergerbd/

© All rights reserved ©2021 -bangladeshkhobor.net.All rights reserved by the publisher.

       
Desing BY Mutasim Billa